Author: আবু সাঈদ ওবায়দুল্লাহ

বিচ্ছিন্নতাবাদির কবিতা

বিচ্ছিন্নতাবাদিদের মুখ পরে আছি
লৌহতারকাদের বনে গুলি ফুটছে,
খা- খা সীমান্ত ছেনে রক্তপিপাসুর ক্যামেরা।
দুরে লাল দেখা যায়- ট্রিগার চেপে গোলাম হয়ে আছে
বন্ধুর রাইফেল!
আমি ফাঁদে আটকানো শিকার
হা করে আছে শত্রু কবলিত রণক্ষেত্র!
জমে বেয়নেট-মুখ, দলত্যাগীদের প্যারাসুট…

একটি মৃত্যুর মানসিক তদন্ত

velvet_darkness

মাহতাব আমার ভাই। আমার অনেক ভাই। কিন্তু মাহতাব আমার খুব প্রিয়। মাহতাব গোধূলিসন্ধ্যা কালে মাছ ধরতে যায়। বাজার থেকে তরকারি কিনে আনে। আমরা মা ছেলেরা মিলেমিশে খাই। মাহতাব রাতে আট বছর আগে একদিন পাঠ করে, আবার চে গুয়েভারার গল্প বলে। আমরা বলি তোমার মনটা ভালো তো ভাই। একদিন জানালা ফাঁক করে দেখি ঝাউ গাছের মাথায় চাঁদ ওঠে। মাহতাব বলে ‘তোমরা ঘুমাও আমি একটু চাঁদ দেখে আসি।’ টিনের চালে ঝুপ করে বৃষ্টি পড়ে। মাহতাব বলে…

তার মুখ তার সুষমা

বিষ্ময় আর বিষ্ময়বোধের নাম। পাখি ও পালক। রক্তকলমের ধ্যান।
আলো অধ্যয়ন। শিখরে রূপ, তুরূপের তাস। পাহাড় আর পাথর ফুঁড়ে
কালামের গাছ। ভাসে ফুল, কোমল পদ্মযোনি। মন্দ্রমুগ্ধ নিষাদের ভাষা।
তার জিন ধরে শেষ শহীদের চার্বাক। থাকে শুধু তামা আর লিপি।